আইসিসি শিরোপা জয়ে নিজেদের করণীয় জানালেন রোহিত

0
105

বিরাট কোহলি টি-টোয়েন্টি দলের নেতৃত্ব স্বেচ্ছায় ছেড়ে দেন। ওয়ানডে দলের নেতৃত্ব থেকে তাকে সরিয়ে দিয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড (বিসিসিআই)।

বর্তমানে ভারতের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি দলের অধিনায়ক রোহিত শর্মা। ভারতীয় এই তারকা ওপেনার সাবেক অধিনায়ক বিরাট কোহলির নেতৃত্বের প্রশংসা করে বলেন, বিরাট কোহলি পাঁচ বছর দলটাকে নেতৃত্ব দিয়েছে। আমরা যখনই মাঠে নামতাম, সব সময়ই প্রতিটি ম্যাচ জেতার একটা চোয়ালবদ্ধ প্রতিজ্ঞা থাকত আমাদের। পুরো দলের উদ্দেশে কোহলির বার্তাই থাকত এমন।

তিনি আরও বলেন, কোহলির অধীন খেলার সময়টা দারুণ কেটেছে আমাদের। ওর অধীন অনেক ম্যাচ খেলেছি আমি। প্রত্যেকটা মুহূর্তই উপভোগ করেছি, এখনো করি।

বিরাট কোহলি ব্যক্তিগত পারফরম্যান্সে সফল হলেও অধিনায়ক হিসেবে ভারতকে আইসিসির ৫টি শিরোপা লড়াইয়ে নেতৃত্ব দিয়ে কোনো ট্রফি উপহার দিতে পারেননি।

আইসিসি শিরোপা জয় নিয়ে ভারতের নতুন অধিনায়ক রোহিত শর্মা বলেন, শেষ পর্যন্ত ফলটা নিজেদের পক্ষে আনতে চাইলে তার আগে অনেক কাজ আমাদের ঠিকভাবে করতে হবে। আমরা সর্বশেষ আইসিসি টুর্নামেন্ট (চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি) জিতেছি ২০১৩ সালে। তবে সেই চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির পর আমরা যেভাবে এগিয়েছি, তাতে ভুল কিছু দেখি না। একটা দল হিসেবেই খেলেছি আমরা, শুধু শিরোপা জিততে যে বাড়তি কিছু লাগে, সেটা ছিল না আমাদের।

ভারতের হয়ে ইতোমধ্যে টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি মিলে ৪১টি সেঞ্চুরি করা রোহিত শর্মা বলেন, আগামী কয়েক বছরে বেশ কয়েকটি বিশ্বকাপ আসছে, সেগুলোতে ভারত ভালো করার চেষ্টা সব সময়ই করবে। আমাদের মূল মনোযোগ শিরোপা জেতা, তবে সেখানে একটা প্রক্রিয়া আছে। দল হিসেবে সেটা আগে মানতে হবে আমাদের। আইসিসির টুর্নামেন্ট জিততে হলে তার আগের অনেক কাজ ঠিকভাবে করতে হবে, তারপরই পারব শিরোপা জেতার কথা ভাবতে।

ভারতের অন্যতম সেরা এই ওপেনার আরও বলেন, যখন চ্যালেঞ্জ আসে, তখন ওই কঠিন পরিস্থিতিতে আমরা কী করতে পারছি, সেটা গুরুত্বপূর্ণ। আমার মনে হয়, আগে আমরা যখনই তেমন পরিস্থিতিতে পড়েছি, ১০ রানে ৩ উইকেট পড়ে গেল বা ১৫ রানে ২ উইকেট, আমরা সেখান থেকে ফিরে আসতে পারিনি।

ভাতীয় দলের নেতৃত্ব দেওয়া প্রসঙ্গে রোহিত বলেন, আমি আগেও সীমিতভাবে ভারতের নেতৃত্ব দেওয়ার সুযোগ পেয়েছি। আর যখনই সুযোগ পেয়েছি, তখন চেষ্টা করেছি সবকিছু সরল রাখতে। একটা দিক সব সময়ই ঠিক রাখতে চেয়েছি, তা হলো খেলোয়াড়দের সঙ্গে যোগাযোগের ক্ষেত্রে পরিষ্কার থাকা। চেষ্টা করেছি, ওরা যেন ওদের ভূমিকা ঠিকমতো বোঝে, সেটা নিশ্চিত করতে। আমি এটাই নিশ্চিত করতে চাই, খেলোয়াড়েরা যেন বোঝে তাদের ঠিক কী কারণে দলে নেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here