আইভীর বিরুদ্ধে বিএনপির ৪ প্রভাবশালী নেতা

0
100

আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী এমপি শামীম ওসমানের সেই আলোচিত ডায়ালগ ‘খেলা হবে’ দেশের গণ্ডি পেরিয়ে ভারতের মাঠ দাবড়িয়ে এবার নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে দাবড়াচ্ছে।

আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াত আইভীর বিরুদ্ধে বিএনপির চার প্রভাবশালী নেতা সিটি নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। এ নিয়ে ‘খেলা হবে’ ডায়ালগটি এখন নারায়ণগঞ্জে ‘টক অব দ্য টাউনে’ পরিণত হয়েছে।

রোববার বিএনপি নেতা সাবেক এমপি মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছেন। সোমবার জেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার মনোনয়ন ক্রয় করবেন বলে জানা গেছে। এর আগে গত নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে পরাজিত মেয়র প্রার্থী মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন খান ও সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছেন।

জানা যায়, আগামী ১৬ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনকে কেন্দ্র করে শহর ও শহরতলীতে মেয়র প্রার্থীদের নিয়ে আলোচনার ঝড় উঠেছে। বিএনপির প্রভাবশালী চার নেতা আওয়ামী লীগের এক প্রার্থীর বিরুদ্ধে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করা মানেই শামীম ওসমানের সেই ডায়ালগটিই মনে করেন অনেকে। নির্বাচন প্রসঙ্গে কথা উঠলেই ‘খেলা হবে’ ডায়ালগ দিয়ে অনেকে আলোচনায় মেতে উঠেন।

ডা. সেলিনা হায়াত আইভী বলেন, দলের অনুমতিতে মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছি। নৌকা প্রতীকের পক্ষে এমপি শামীম ওসমান কাজ করবেন। আমি আশাবাদী আবারো নৌকার জয় হবে।

নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খন্দকার বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করতে হলে কী কী প্রয়োজন এসব জানতে শনিবার নির্বাচন অফিসে গিয়ে খোঁজখবর নিয়েছি। মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করব। দলীয় নির্দেশ পেলে অবশ্যই নৌকার বিরুদ্ধে খেলা হবে এবং জয় নিয়ে ঘরে ফিরব।

সাবেক এমপি মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন বলেন, মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছি। অবশ্যই নৌকার বিরুদ্ধে খেলা হবে এবং বিপুল ভোটে জয়ী হব ইনশাহআল্লাহ।

অ্যাডভোকেট মোহাম্মদ সাখাওয়াত হোসেন খান বলেন, এবার অবশ্যই জয়ী হব। নৌকার বিরুদ্ধে সবাই আমাকে ভোট দেবেন।

এটিএম কামাল বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র ক্রয় করেছি। নির্বাচন করব, অবশ্যই নারায়ণগঞ্জবাসী আমাকে জয়যুক্ত করবেন। আমি সবসময় নারায়ণগঞ্জবাসীর পাশে থাকি। মানুষের অধিকার নিয়ে আন্দোলন করি। জনসাধারণ আমাকে চায়।

উল্লেখ্য, ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী মনোনয়নপত্র জমা দেওয়ার শেষ সময় ১৫ ডিসেম্বর। ২০ ডিসেম্বর বাছাই, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ সময় ২৭ ডিসেম্বর। ভোটগ্রহণ ১৬ জানুয়ারি। নাসিকে মেয়র পদ ছাড়াও ২৭টি সাধারণ ওয়ার্ড ও ৯টি সংরক্ষিত ওয়ার্ডে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here