গরুর পরিচর্যায় পুলিশ সদস্যরা!

0
104

রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে সম্প্রতি উদ্ধার হওয়া ৪টি গরু গত চার দিন ধরে পরিচর্যা করছেন পুলিশ সদস্যরা। চারটি গরুর মধ্যে কালো রংয়ের গরুটি দুধ দেওয়া গাভী এবং একটি আইড়া বাছুর ও একটি বকনা বাছুর রয়েছে।

পরিচর্যার পাশাপাশি মালিকবিহীন গরুগুলোর প্রকৃত মালিকের খোঁজে বিভিন্ন স্থানে অনুসন্ধান চালাচ্ছে পুলিশ।

থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গত বুধবার রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া চর কর্ণেশনা কলাবাগান এলাকা থেকে ৪টি গরু উদ্ধার করা হয়। সেই সঙ্গে স্থানীয় মৃত সালাম শেখের দুই ছেলে জামাল শেখ (৩০) ও হারুন শেখকে ওই গরুগুলো চুরির অভিযোগে গ্রেফতার করা হয়। পরে মামলা দিয়ে তাদের আদালতে পাঠানো হয়।

 

সেই সঙ্গে চোর চক্রের মূলহোতা একই এলাকার গাজি কসাই ও চুন্নু কসাইকে ধরতে মাঠে নামে পুলিশ।

সরেজমিন শনিবার গোয়ালন্দ ঘাট থানা প্রাঙ্গণে দেখা যায়, পুলিশ কনস্টেবল নুরুজ্জামান মিয়া পুলিশের গ্যারেজ থেকে গরুগুলো বাইরে আনছেন। অন্যদিকে গরুর খাবার প্রস্তুত করছেন পুলিশের আরেক সদস্য রকিবুল ইসলাম। শীত-কুয়াশায় খোলা আকাশের নিচে গরুগুলো যাতে অসুস্থ না হয় সেজন্য থানার ওসি আব্দুল্লাহ আল তায়েবীর গরুগুলোকে গাড়ি রাখার গ্যারেজে রাখার নির্দেশ দিয়েছেন। তবে দিনের বেলায় থানা প্রাঙ্গণে খোলা আকাশের নিচে রেখে পরিচর্যা করা হচ্ছে। পুলিশের এই পদক্ষেপকে সাধুবাদ জানিয়েছেন স্থানীয়রা।

গরু লালন-পালন করা পুলিশ সদস্য মো. নুরুজ্জামান বলেন, আমি গ্রামের ছেলে। গ্রাম থেকে এসে পুলিশের চাকরি করছি। গত চার দিন ধরে স্যারের নির্দেশে গরুগুলোকে লালন-পালন করছি। পুলিশি সেবার বাইরে গরুগুলো লালন-পালন করতে সত্যি ভালো লাগছে। এতে আমাদের কোনো সমস্যা হচ্ছে না।

গোয়ালন্দ থানার ওসি আব্দুল্লাহ্ আল তায়াবীর বলেন, আমরা গরুগুলোকে প্রকৃত মালিকের কাছে হস্তান্তর করতে চাই। সেই তৎপরতা অব্যাহত রয়েছে। যেহেতু গরুগুলো জব্দ করা রয়েছে। সেক্ষেত্রে আদালতের নির্দেশনা ছাড়া আমরা কোনো সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারছি না।

রোববার আদালতে গরুর ব্যাপারে নির্দেশনা চাওয়ার পাশাপাশি গ্রেফতারকৃত দুই চোরের সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন জানানো হবে।

রাজবাড়ীর পুলিশ সুপার এমএম শাকিলুজ্জামান বলেন, গরুগুলোকে সুস্থ ও স্বাভাবিকভাবে প্রকৃত মালিকের কাছে ফিরিয়ে দেওয়ার লক্ষ্যে পুলিশ কাজ করছে। গরুগুলো উদ্ধারের মাধ্যমে পুলিশ যে জনগণের জানমালের অতন্দ্র প্রহরী সেটি আরও একবার প্রমাণ করেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here