জার্মানির ট্রাফিক সিগন্যাল সরকারের যাত্রা শুরু

0
126

গত ২৬ সেপ্টেম্বর নতুন বুন্ডেস্ট্যাগের নির্বাচনের পরিপ্রেক্ষিতে, সোশ্যাল গণতান্ত্রিক এসপিডি, সবুজ ও লিবারেল গণতান্ত্রিক দলের সমন্বয়ে জার্মানির নতুন সরকার পার্লামেন্ট অধিবেশন শুরু হয়েছে।সবকিছুই ট্রাফিক-লাইট কোয়ালিশনের দিকে ইঙ্গিত করে- লাল, সবুজ এবং হলুদ দলগুলোকে মিত্র করে এসপিডির ওলাফ সোলজের অধীনে চ্যান্সেলর হিসেবে বড়দিনের আগে সরকারি কাজ শুরু করা।

আপস করার জন্য প্রস্তুত ছিল, যা অবশ্যই সহজ ছিল না।এসপিডি এবং সবুজ উচ্চ আয়কর হার এবং একটি সম্পদ করের জন্য তাদের পরিকল্পনা বাদ দেয়।বিনিময়ে লিবারেল গণতান্ত্রিক দল বেশি উপার্জনকারী ব্যক্তি এবং কোম্পানিগুলোর জন্য ট্যাক্স ও ত্রাণের জন্য দীর্ঘস্থায়ী দাবি পরিত্যাগ করেছে।

সরকারি ঋণের ক্ষেত্রে, সমঝোতা খুঁজে পাওয়া তুলনামূলকভাবে সহজ ছিল, যেহেতু শুধুমাত্র সবুজ তাদের নির্বাচনী ওয়াদায় ‘ডেট ব্রেক’ নরম করার আহ্বান জানিয়েছিল এবং এটা আশা করা যায় না যে দুই-তৃতীয়াংশ সংশোধনের জন্য প্রয়োজনীয় সংখ্যাগরিষ্ঠতা সংসদে পাওয়া যাবে। সুতরাং দলগুলো এর কাঠামোর মধ্যে থাকতে সম্মত হয়েছে।

আশ্চর্যজনকভাবে লিবারেল গণতান্ত্রিক দল জানুয়ারি থেকে ৯৬০ ইউরো থেকে ১২ ইউরো পর্যন্ত ন্যূনতম মজুরিতে ২৫ শতাংশ বৃদ্ধিতে সম্মত হয়েছে।এটি নেদারল্যান্ডস (১০,৩৪), ফ্রান্স (১০,২৫) এবং বেলজিয়াম (৯,৮৫)এর স্তরের উপরে হবে। ২০০০ দশকের নব্য উদারপন্থি অবস্থান থেকে সরে এসেছে। পূর্ববর্তী মৌলিক আয় সহায়তা- বিশেষ করে দীর্ঘমেয়াদি বেকারদের জন্য একটি ‘নাগরিকের আয়’ ব্যাপক কষ্টের সাথে প্রতিস্থাপন করার ইচ্ছার মধ্যেও স্পষ্ট। এটি আসলে একটি প্যারাডাইম পরিবর্তনের দিকে নিয়ে যাবে কিনা তা শুধুমাত্র জোট চুক্তি অনুযায়ী হলে বিচার করা যেতে পারে। সবুজ দল লাল বা হলুদের চাপে পিষ্ঠ হবে না- সবুজে ভরে যাবে দেশ তা দেখার পালা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here