সাবমেরিন থেকে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা নিয়ে যা বলল উত্তর কোরিয়া

0
132

জাপান সাগরে সাবমেরিন থেকে ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে উত্তর কোরিয়া। এই পরীক্ষা সফল হয়েছে বলেও দাবি করেছে দেশটি। বিবিসি বুধবার এক প্রতিবেদনে এ খবর নিশ্চিত করেছে।

উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদ সংস্থা কেসিএনএ জানায়, ২০১৬ সালে যে সাবমেরিন থেকে পিয়ংইয়ং ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছিল উন্নত প্রযুক্তির এই ক্ষেপণাস্ত্র সেই একই সাবমেরিন থেকে উৎক্ষেপণ করা হয়েছে। তবে ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষার সময় উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উন উপস্থিত ছিলেন কী সে ব্যাপারে কেসিএনএ কিছু জানায়নি।

এর আগে পিয়ংইয়ং জাপান সাগরে ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে বলে অভিযোগ করেছিল দুই প্রতিবেশী দেশ জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়ার কর্মকর্তারা।

মঙ্গলবার স্থানীয় সময় সকাল সোয়া ১০টার দিকে সিনপো শহরের কাছাকাছি এলাকা থেকে ওই ক্ষেপণাস্ত্রটি উত্তর কোরিয়ার পূর্ব উপকূলের কাছের সাগরে ছোড়া হয় বলে দক্ষিণের জয়েন্ট চিফস অব স্টাফ (জেসিএস) নিশ্চিত করেছিল।

সিনপোতেই পিয়ংইয়ং তাদের সাবমেরিন এবং সাবমেরিন থেকে নিক্ষেপযোগ্য ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র (এসএলবিএম) ছোড়ার সরঞ্জামাদি রাখে। উত্তর কোরিয়া ওই এলাকা থেকে অন্য ধরনের ক্ষেপণাস্ত্রও ছোড়ে।

এ ব্যাপারে জাপানের প্রধানমন্ত্রী ফুমিও কিশিদা বলেছিলেন, তারা দুটি ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র শনাক্ত করেছেন। সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে উত্তর কোরিয়া যে একের পর এক ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ছে, তা খুবই দুঃখজনক বলেও মন্তব্য করেছেন তিনি।

এমন একসময়ে পিয়ংইয়ং জাপান সাগরে এই ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়ল যখন সিউলে দক্ষিণ কোরিয়া, জাপান ও যুক্তরাষ্ট্রের গোয়েন্দাপ্রধানদের বৈঠকের একটি খবর চাউর হয়েছে। দক্ষিণ কোরিয়ার সরকারি একটি সূত্রের বরাত দিয়ে দেশটির বার্তা সংস্থা ইয়োনহাপ এ বৈঠকের কথা জানিয়েছিল।

একটি আন্তর্জাতিক মহাকাশ ও প্রতিরক্ষা প্রদর্শনীর (এডিএএক্স) উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নিতে শতাধিক আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠান ও বিভিন্ন দেশের সামরিক বাহিনীর প্রতিনিধিরাও এখন সিউলে জড়ো হয়েছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here