ন্যাটোর দাবি হাস্যকর ও মর্যাদাহানিকর: ল্যাভরভ

0
23

মার্কিন নেতৃত্বাধীন সামরিক জোট ন্যাটো নিজেকে ‘নিছক প্রতিরক্ষা জোট’ দাবি করে যে বক্তব্য দিয়েছে তাকে ‘হাস্যকর ও মর্যাদাহানিকর’ বলে মন্তব্য করেছে রাশিয়া।

শুক্রবার রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বেলারুশের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক সমাবেশে বক্তৃতা করার সময় এ কথা বলেন।

সম্প্রতি ন্যাটো জোটের একাধিক সদস্য দেশের কর্মকর্তারা এই জোটকে আত্মরক্ষামূলক জোট বলে দাবি করেন।

এর জবাবে ল্যাভরভ বলেন, সম্প্রতি হোয়াইট হাউজের একজন প্রতিনিধি এ কথার পুনরাবৃত্তি করেছেন যে, রাশিয়া বা অন্য কারো ন্যাটোকে ভয় পাওয়ার কিছু নেই; কারণ, ন্যাটো একটি আত্মরক্ষামূলক জোট। ‘প্রাপ্তবয়স্ক মানুষেরা এ ধরনের বাজে কথা বলতে পারেন দেখে আমাদের হাসি পায়। এ ধরনের কথাবার্তা মর্যাদাহানিকর।’

ন্যাটো জোট প্রতিষ্ঠা এবং ওয়ারশ জোট ও সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের সঙ্গে এটির সংঘাতপূর্ণ অবস্থানের ইতিহাস স্মরণ করে ল্যাভরভ বলেন, ওয়ারশ চুক্তি এবং সোভিয়েত ইউনিয়নের অস্তিত্ব বহু আগে শেষ হয়ে গেলেও পূর্বদিকে নিজের বিস্তার পাঁচগুণ বাড়িয়েছে ন্যাটো।

রুশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ক্ষুব্ধ স্বরে প্রশ্ন করেন, তাহলে ন্যাটো এতদিন কাদের মোকাবিলায় নিজেকে রক্ষা করেছে?

ল্যাভরভ বলেন, কেউ যখন সামনের দিকে অগ্রসর হয়, নতুন নতুন দেশকে নিজের করায়ত্বে আনে এবং সে সব দেশে সামরিক সরঞ্জাম ও সমরাস্ত্র মোতায়েন করে তখন তাকে মোটেই আত্মরক্ষা বলে না বরং একে তার উল্টোটাই বলতে হয়।

স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদে বৃহস্পতিবার ন্যাটো জোটের বার্ষিক সম্মেলন শেষ হওয়ার পর শুক্রবার এ বক্তব্য দিলেন সের্গেই ল্যাভরভ। মাদ্রিদ সম্মেলনে নিজের পূর্ব ফ্রন্টে সামরিক শক্তি বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে ন্যাটো।

এছাড়া মাদ্রিদ সম্মেলন থেকে রাশিয়ার সীমান্তবর্তী দুদেশ সুইডেন ও ফিনল্যান্ডকে ন্যাটোতে অন্তর্ভুক্ত করার ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

সূত্র: তাস নিউজ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here