ওমর সানী-জায়েদ খান দ্বন্দ্ব নিয়ে যা বললেন ডিপজল

0
28

শুক্রবার রাজধানীর একটি কনভেনশন সেন্টারে ছিল ঢাকাই ছবির খল অভিনেতা ডিপজলের ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠান। যেখানে উপস্থিত হন ১০ হাজারের মতো অতিথি।তারকাদের মিলনমেলায় পরিণত হয় সেই বিয়ের অনুষ্ঠান।

আর এমন জমকালো আয়োজনে ঘটেছে অপ্রীতিকর ঘটনা, যা নিয়ে হতভম্ব চলচ্চিত্রাঙ্গন।

প্রত্যক্ষদর্শীদের থেকে জানা গেছে, চিত্রনায়ক ওমর সানীকে পিস্তল ঠেকিয়ে গুলির হুমকি দেন আরেক নায়ক জায়েদ খান। তার আগে জায়েদকে সবার সামনেই কষে চড় মারেন ওমর সানী। এ ঘটনায় দুজনের মধ্যে তুমুল বাকবিতণ্ডা হয়। ঘটনার সময় ডিপজলসহ চলচ্চিত্রের কয়েক অভিনয়শিল্পী সোফায় বসা ছিলেন।

একপর্যায়ে সানী ও জায়েদ দুজনেই না খেয়ে অনুষ্ঠান ছেড়ে বেরিয়ে আসেন।

অপ্রীতিকর ঘটনার বিষয়ে জানতে চাওয়া হয় অভিনেতা ও প্রযোজক ডিপজলের কাছে।তিনি বিস্তারিত কিছুই বলতে চাননি।

ডিপজল বলেন, ‘ওই একটু ধাক্কাধাক্কি হয়েছে দুজনের মধ্যে। এটুকুই।’

জায়েদ খানের পিস্তল বের করে হুমকি দেওয়ার কথাও এড়িয়ে গেলেন ডিপজল।

বললেন, ‘না ভাই, আমি এসব জানি না। এসব ব্যাপারে আমার কোনো কিছু বলার ইচ্ছা নাই। বলতেও চাই না। হয়তো আগে থেকে তাদের মধ্যে রাগারাগি ছিল, এ কারণে ঘটনাটি ঘটেছে। আমি বিয়ে নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম, এর বেশি কিছু জানি না।’

যদিও জায়েদ পিস্তল বের করে হুমকি দিয়েছিলেন ও তার আগে তাকে কষে চড় মারার কথা স্বীকার করেছেন ওমর সানী।

এ নায়ক বলেছেন, ‘আমি জায়েদ খানকে চড় মেরেছি। কিন্তু কী কারণে মেরেছি, সেটিও তো জানতে হবে সবাইকে। আর চড় মারার পর আমাকে মারতে সে পিস্তল বের করবে! কত্ত বড় সাহস!’

রোজিনা, অঞ্জনা ও সুচরিতাদের মতো বর্ষীয়ান অভিনেত্রীদের সামনেই ঘটে এ ঘটনা।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সোফা ছেড়ে উঠে পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করেছিলেন ডিপজল।

ওমর সানী ও জায়েদকে থামিয়ে দিয়ে ডিপজল তাদের বলেন, ‘এই আমার ছেলের বিয়ের অনুষ্ঠান! এত বড় অনুষ্ঠান, এত মানুষ— এসব কী হচ্ছে? অনেক মানুষ থাকায় কেউ এখনো টের পায়নি।’

এর পর ওমর সানীকে ডেকে ডিপজল বলেন, খাইয়া যাবা না? সানী বলেন, আমার মাথা গরম। আমি খাব না।

এর পর গাড়ি চালিয়ে বের হয়ে যান ওমর সানী। সাড়ে ৯টার দিকে ঘটনা ঘটেছে। ওমর সানী বের হওয়ার আধাঘণ্টা পর জায়েদ খানও বের হয়ে যান।

হঠাৎ কী এমন ঘটল যে, বিয়ের মতো আনন্দঘন অনুষ্ঠানে জায়েদকে দেখেই চড় মেরে বসলেন ওমর সানী! জায়েদও পিস্তল বের করলেন!

ডিপজলের বক্তব্য অনুযায়ী, জায়েদ খানের ওপর আগে থেকেই ক্ষুব্ধ ছিলেন ওমর সানী। তিনি জায়েদ খানকে খুঁজছিলেন। ডিপজলের ছেলের বিয়েতে তাকে পাবেন, এটি জেনেই সেখানে যান সানী।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী একজন চলচ্চিত্রশিল্পী নাম প্রকাশ না করার শর্তে গণমাধ্যমকে শনিবার রাতে বলেন, ‘ চিত্রনায়িকা মৌসুমীর সঙ্গে জায়েদ খান খারাপ আচরণ করেছেন এমনটি শুনেছি। বিষয়টি নিয়ে জায়েদের ওপর ভীষণ বিরক্ত ছিলেন ওমর সানী। ডিপজলের কাছে বিচারও দিয়েছিলেন সানী। সেই সময় ডিপজল বলেছিলেন, ‘থাক, বাদ দাও। মারামারি করার দরকার নেই। সামনে জায়েদ আর মৌসুমীকে কোনো ডিস্টার্ব করবে না। মৌসুমীর কাছেও যাবে না।’

‘কিন্তু ডিপজলের এমন সমাধান ওমর সানী মেনে নেননি। কয়েক দিন ধরে তাই জায়েদ খানকে খুঁজছিলেন। আর শুক্রবার বিয়ের অনুষ্ঠানে তাকে পেয়েই গায়ে হাত তোলেন সানী।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here