অপো এফ২১ প্রো ফাইভজি: উদ্ভাবন ও নান্দনিক ডিজাইনের অপূর্ব সমন্বয়

0
39

অত্যাধুনিক প্রযুক্তি, আইকনিক ডিজাইন ও উদ্ভাবনী ভাবনা – এ তিনটি বিষয়কে প্রাধান্য দিয়েই শীর্ষস্থানীয় স্মার্ট ডিভাইস ব্র্যান্ড অপো প্রতিনিয়তই দেশের বাজারে নিয়ে আসছে নিত্য নতুন প্রযুক্তির স্মার্টফোন। ব্যবহারকারীদের ফোন ব্যবহারের অনন্য অভিজ্ঞতা দিতে প্রতিষ্ঠানটি এর এফ সিরিজের নতুন ডিভাইস এফ২১ প্রো ফাইভজি সংস্করণের ডিভাইসটি বাংলাদেশের বাজারে নিয়ে এসেছে। এফ২১ প্রো ফাইভজি ডিভাইসটি অপো’র নিজস্ব উৎপাদন প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়েই তৈরি করা হয়েছে; যেখানে উদ্ভাবনী অপো গ্লো ও ডুয়াল অরবিট লাইটস ডিজাইন নিয়ে আসা হয়েছে। উদ্ভাবন সমৃদ্ধ এ ডিভাইসটি নিশ্চিতভাবেই নতুন ট্রেন্ডসেটার হিসেবে ব্যবহারকারীদের মন জয় করতে পারবে বলে প্রত্যাশা করা যাচ্ছে।

রঙধনুর মতো প্রিজম্যাটিক ভিজ্যুয়াল ইফেক্ট

অপো এফ ২১ প্রো ফাইভজি ডিভাইসে অত্যাধুনিক সিএমএফ (রঙ, ম্যাটেরিয়ালস, ফিনিশ) টেকনিক ব্যবহার করা হয়েছে। রেইনবো স্পেকট্রাম ও কসমিক ব্ল্যাক – ব্যবহারকারীদের জন্য এ দু’টি রঙে ডিভাইসটি বাজারে নিয়ে আসা হয়েছে। রেইনবো স্পেকট্রাম রঙের ডিভাইসটি তৈরির প্রক্রিয়ায় ‘থ্রি-লেয়ার টেক্সচার ও টু-লেয়ার কোটিং’ ব্যবহার করা হয়েছে, যার ফলে ভিন্ন দৃষ্টিকোণ থেকে ফোনটি রঙধনু রঙের আবহ তৈরি করবে। থ্রি-লেয়ার টেক্সচারে ‘ইনারমোস্ট স্কেটারিং’ গ্রেইন, এসজি গ্রেইনে ইন্টারলেয়ার ও গ্লসি-অ্যান্ড-ম্যাট গ্রেইন দিয়ে তৈরি উজ্জ্বল অপো গ্লো ডিজাইন ও ডিভাইসটির ক্যামেরা সেকশনেও রয়েছে গ্লসি লেয়ার। এ সব কিছুর সমন্বয়ে, অপো ডিভাইসটির পেছনের দিকে একটি উন্নত টেক্সচার তৈরি করেছে। লাল, হলুদ ও সবুজ রঙের সমন্বয়ে মাল্টি-কালার গ্রেডিয়েন্ট তৈরি হয়েছে; পাশাপাশি, ইন্ডিয়াম কোটিংয়ের একটি বেস লেয়ারের সঙ্গে রঙের পরিবর্তনের জন্য সহায়ক ভূমিকা রাখে যথাক্রমে সবুজ, বেগুনি ও গোলাপী রঙ। এর ফলে, এফ২১ প্রো ফাইভজি’র রেইনবো স্পেকট্রাম ছয়টি প্রধান রঙে উজ্জ্বল, মনোমুগ্ধকর ও ‘হাইলি-রিফ্লেক্টিভ’ আকারে আবির্ভূত হয়। গ্লসি ও ম্যাট টেক্সারের সমন্বিত বিষয়টি গ্রেডিয়েন্ট ফিনিশ এ আলো ছায়ার এক অপূর্ব মিশ্রণ তৈরি করে। অপো গ্লো ম্যাট ক্যামেরার অংশটুকুকে আরো বেশি দৃশ্যমান করে তুলেছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here