মিথিলার সঙ্গে সম্পর্কের গুঞ্জন নিয়ে যা বললেন জন কবির

0
38

গায়ক তাহসানের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর রাফিয়াত রশিদ মিথিলার সম্পর্ক নিয়ে নানা কথা চাউর হয়।

মিথিলার প্রেমিক হিসেবে যাদের নাম আলোচনায় আসে এদের মধ্যে ‘ব্ল্যাক’খ্যাত তারকা জন কবির অন্যতম। মিথিলা ও জন কবিরের মধ্যে বন্ধুত্ব দীর্ঘদিনের। দুজনের মধ্যে ভালো বোঝাপড়াও আছে।

বিভিন্ন সময়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল এ দুই তারকার কিছু ছবি নিয়ে গুঞ্জনে মাতেন কেউ কেউ। তাদের নিয়ে অনেক মুখরোচক চর্চা হতে দেখা গেছে সামাজিকমাধ্যমে।

এমন গুঞ্জনও শোনা গেছে, তাহসানের সঙ্গে মিথিলার সংসার ভাঙার নেপথ্যে নাকি জন! যদিও এসব গুঞ্জনের কোনো সত্যতা পাওয়া যায়নি।

জন-মিথিলা সবসময়ই বলে এসেছেন তারা একে অপরের ভালো বন্ধু। এ ছাড়া আর কিছুই নয়।

একাধিকবার নিজেদের সুসম্পর্কের বিষয়টি স্পষ্ট করেছেন তারা। কিন্তু তাতেও গুঞ্জনের আগুনে ছাইচাপা দেওয়া যায়নি।

এবার ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির মুখোমুখি হয়ে বিষয়টি আরও স্পষ্ট করলেন জন কবির।

এই ব্যান্ড তারকা বললেন, ‘মিথিলা আমার কি রকম বন্ধু, সেটি আমার আব্বু (এখন বেঁচে নেই), আম্মু সবাই জানে। সম্পর্কের গুঞ্জনের ব্যাপারটা শুনে আমার আম্মু সবচেয়ে অবাক হয়েছিলেন। তিনি বলতেন, মানুষের কি মাথা খারাপ হয়ে গেছে! তখন আমি আম্মুকে বুঝিয়ে বলতাম— মানুষ তো আমাদের পারসোনালি চেনে না। তাই এ রকম গল্প ছড়ায়। আসলে মানুষ গল্প বানাতে খুব পছন্দ করে।’

এমন সব গুঞ্জনকে পাত্তা দেন না মন্তব্য করে জন কবির বলেন, ‘মিথিলার সঙ্গে বন্ধুত্বটা কিন্তু তাহসানের মাধ্যমেই। যারা মিথিলার সঙ্গে আমার সম্পর্কের কথা ভাবেন, তারা হয়তো এটা ভেবেই মজা পান। কিন্তু সেটিকে আমাদের ওপর চাপিয়ে দেওয়াটা সমস্যা। আমি তো জানি, আমার জীবনটা আমি যাপন করছি, মিথিলা তার জীবন। আপনাদের কথায় তো আমাদের জীবন পরিবর্তন হয়ে যাচ্ছে না। আপনারা যদি এসব গুঞ্জন ছড়িয়ে মজা পান, সেটা আপনাদের জন্য ভালো। কিন্তু আমাদের এতে কিছুই আসে-যায় না। কারণ আমি, মিথিলা তাহসান ভালো করেই জানি, আমরা কেমন।’

এর পরও ঘুরেফিরেই সেই প্রশ্নটা আসে— কেন ব্ল্যাক ছেড়েছিলেন জন কবির?

জবাবে তাহসানের সঙ্গে দ্বন্দ্ব তৈরির বিষয়টি স্বীকার করেন জন। সে কারণেই ব্ল্যাক ছাড়েন বলে জানান এ মিউজিশিয়ান।

ব্ল্যাক ছেড়ে অনেক দিন ধরে ইন্দালো নামের ব্যান্ড নিয়ে কাজ করছেন জন। যদিও এখনো সংগীতপ্রেমীরা তাকে ব্ল্যাকের জন বলেই জানে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here