এই গল্প ‘সিংহ’ ও ‘টাইগারের’

0
22

চরম অর্থনৈতিক সংকটে দিশেহারা শ্রীলংকা। তাতে ‘সিংহ’ গায়ান সেনানায়কের কিছু আসে-যায় না। প্রিয় দলকে সমর্থন জানাতে এসেছিলেন চট্টগ্রামে।

এদিকে ‘টাইগার’ শোয়েব আলীর মানবিক গুণাবলি সবার মন ছুঁয়ে যাচ্ছে। বাগেরহাট, খুলনা ও সাতক্ষীরার দক্ষিণাঞ্চলের সুবিধাবঞ্চিতদের সাধ্যমতো সাহায্য করে যাচ্ছেন শোয়েব। কম দামে তরমুজ কিনে লঞ্চে অসহায় মানুষের কাছে পৌঁছে দিয়ে চট্টগ্রামে এসেছিলেন তিনি।

শোয়েবের তরমুজ বিতরণের ভিডিও দেখে এক সাংবাদিক বলেন, ‘শোয়েব তরমুজ নিয়ে এসো।’ শোয়েব তরমুজ নিয়ে হাজির। চট্টগ্রাম টেস্টের প্রথমদিনের খেলা শেষে অপেক্ষায় ছিলেন স্টেডিয়ামের বাইরে। সেই তরমুজ তুলে দেন সাংবাদিকের হাতে।

গায়ান প্রথম বাংলাদেশে আসেন ২০০৬ সালে। এ নিয়ে সপ্তমবার এলেন। দেশের প্রতি তার প্রচণ্ড ভালোবাসা। শোয়েবের একটি লাইভ ভিডিওতে গায়ান বলেন, ‘শ্রীলংকায় অনেক পাহাড়, বন, সমুদ্রবন্দর আছে। অনেক সুন্দর দেশ শ্রীলংকা।’ এই ক্রিকেট সমর্থক জানালেন, দেশের পরিস্থিতি যতই ভয়াবহ হোক, তিনি দেশকে সমর্থন দিয়ে যাবেন।

দেশের জন্য হৃদয় কাঁদে শোয়েবেরও। পেশায় তিনি গাড়ির মেকানিক। করোনার সময় নিজের স্বল্প আয় থেকেই প্রত্যন্ত অঞ্চলের মানুষের জন্য নিয়মিত রান্না করে নিয়ে হাজির হয়েছেন। কারও কষ্টে তার পাশে দাঁড়ান। কারও ছেলে-মেয়ে ছেড়ে চলে গেছেন, এমন ব্যক্তিদের বাবা-মা বলে জড়িয়ে ধরেন। শোয়েবের ভাষায়, তার হৃদয়ে বাংলাদেশ। ক্রিকেট দলকে ভালোবেসে মাঠে থাকেন। একইসঙ্গে অসহায় মানুষের সাহায্যে নিজেকে উজাড় করে দেন। সাধারণ দর্শকদের মতো শোয়েব-গায়ানদের মাঠে যাওয়া শুধু আনন্দের জন্য নয়, দেশকে তারা হৃদয়ে ধারণ করেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here