প্রায় ১০০ বিঘা জমির ধান কেটে দিল ছাত্রলীগ নেতারা

0
31

কয়েকদিন ধরেই লাগাতার বৃষ্টি। এরমধ্যে দেখা দিয়েছে ধান কাটার শ্রমিক সংকট। অতিরিক্ত মজুরিতেও মিলছে না ধান কাটার শ্রমিক।

ফলে চট্টগ্রামের হাটহাজারী উপজেলার ফতেপুর ইউনিয়নের বাসিন্দা রাজা রাম বিলের দুই কৃষক মো. সেলিম ও মো. হাবিব তাদের রোপনকৃত পাকা বোরো ধান কেটে ঘরে তুলতে না পরায় দুশ্চিন্তার ভাঁজ পড়ে কপালে। এতে করে ওই দুই কৃষক বিশাল ক্ষতির সম্মুখীন হতে যাচ্ছিল।

তবে গণমাধ্যম মারফত বিষয়টি বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়ের নজরে আসলে তার নির্দেশে ওই দুই কৃষকের প্রায় ১০০ বিঘা জমির পাকা বোরো ধান কেটে ঘরে তুলে দিল ছাত্রলীগ নেতারা।

বৃহস্পতিবার যুগান্তরের কাছে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন হাটহাজারী উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি আরিফুর রহমান রাসেল।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়ের নজরে আসার পর তিনি চট্টগ্রাম উত্তর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি তানভীর হোসেন চৌধুরী তপু ও সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিমকে অবহিত করে। তারা ওই দুই কৃষকের সঙ্গে কথা বলে আমাকে যাতয়াত ব্যবস্থা নিতে বলে। পরে নেতাকর্মীদের সঙ্গে নিয়ে ওই দুই কৃষকের প্রায় ১০০ বিঘা জমির পাকা বোরো ধান কেটে ঘরে তুলে দিয়েছি।

এ ব্যাপারে ওই দুই কৃষক মো. সেলিম ও মো. হাবিব বলেন, ছাত্রলীগের ছেলেদের কারনে আমরা পাকা ধানের ফসল ঘরে তুলতে পারছি। এতে আমরা বোরো চাষীরা বড় ক্ষতির মুখ থেকে রক্ষা পেয়েছি। তাই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া করবো মানুষের সেবা করার জন্য তিনি যেন তার হায়াত দেন। এছাড়া বাংলাদেশ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদেরকে তাদের এমন মহৎ কাজের জন্য ধন্যবাদ জানাই।

এদিকে এ ধান কাটা কার্যক্রমে অংশ নেন ফতেপুর ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপি সদস্য রাসেল মনি বাহাদুর, ইউপি সদস্য নাঈম উদ্দিন, উপজেলা ছাত্রলীগ নেতা কামাল উদ্দিন, মঈন উদ্দিন সম্রাট, আশরাফুল ইসলাম, বি এম নুর উদ্দিন, বিলাস চৌধুরী অংকন, মোরশেদ, রায়হান চৌধুরী, শাখাওয়াত হোসাইন সাজিদ, মো. হারুন, ইরফান সিরাজ, জাহেদ নয়ন, জাহেদুর রহমান জাহেদ, সাকলাইন মোস্তাক, আকিব সানি, মিফতাহুল হাসান, মো. আজিম, ওয়াহিদুল আলম রিয়াদ, মুহাম্মদ আইয়ুব, জাকির আহম্মদ, জালাল উদ্দিন আদর, মুহাম্মদ ইমন, জহিরুল ইসলাম রবিন, মাহফুজুর রহমান, সাজিদ সালাম সিহাম এবং জহিরুল ইসলাম প্রমুখ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here