তামিমের টানা সেঞ্চুরির দিনে রেকর্ড গড়লেন বিজয়

0
28

প্রাইম ব্যাংকের ব্যাটিং অর্ডারের স্তম্ভে পরিণত হয়েছেন এনামুল হক বিজয়। ঢাকা প্রিমিয়ার ডিভিশন ক্রিকেট লিগের চলতি মৌসুমের প্রায় ম্যাচেই ব্যাটে রান পেয়েছেন অভিজ্ঞ এ ব্যাটার।

বৃহস্পতিবার বিকেএসপিতে গাজী গ্রুপ ক্রিকেটার্সের বিপক্ষে খেলতে নেমে ৯৬ রানে আউট হয়েছেন এ ওপেনার। তবে তাতেই গড়েছেন আরও এক রেকর্ড।

সঙ্গে বিজয়ের সতীর্থ প্রাইম ব্যাংকের ওপেনার তামিম ইকবাল বেশ ছন্দে আছেন। গত ম্যাচের পর আজও সেঞ্চুরি করেছেন।

জাতীয় দলের হয়ে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে থাকায় ডিপিএলের লিগ পর্বের ম্যাচগুলো খেলতে পারেননি তামিম। সুপার লিগে দলের দ্বিতীয় ম্যাচ থেকে মাঠে নামেন এ বাঁহাতি ওপেনার। তবে নিজের প্রথম ম্যাচে থামেন মাত্র ৮ রান করে। এর পর ব্যাট হাতে রাজত্ব তামিমের।

শেখ জামালের বিপক্ষে সেঞ্চুরির পথে তামিম ছুটে আউট হন ৯০ রান করে। পরের ম্যাচে তুলে নেন শতক। অপরাজিত থাকেন ১০৯ রানে। আজ গাজী গ্রুপের বিপক্ষে ম্যাচে টানা দ্বিতীয় শতক পেয়েছেন তামিম।

বিকেএসপির তিন নম্বর মাঠে তখন ৩০তম ওভারের খেলা চলছিল। প্রতিপক্ষ দলের বোলার আরাফাত সানির বলে প্রান্ত বদলে তামিম পেয়ে যান শতক। লিস্ট ‘এ’ ক্যারিয়ারের এটি বাঁহাতি ওপেনাতের ২১তম শতকটি এসেছে ১২২ বলে ৯টি চার ও ৩টি ছক্কায়। পরে অবশ্য তামিমের ইনিংস থামে ১৩৭ রানে। ১৩২ বলে ১৩টি চার ও ৬টি ছয় আসে তামিমের ব্যাট থেকে।

এদিকে ব্যাট হাতে একের পর এক রেকর্ড গড়ে চলেছেন বিজয়। লিস্ট ‘এ’ মর্যাদা পাওয়ার পর সাইফ হাসানের ৮১৪ রানের রেকর্ড ছাড়িয়ে সর্বোচ্চ রানের মালিক বনে গেছেন আগেই। এর পর এক মৌসুমে ছুঁয়েছেন এক হাজার রানের গণ্ডি, যা বাংলাদেশ তো বটেই, বিশ্বের কোনো ব্যাটসম্যানের এক মৌসুমে চার অঙ্কের রান ছোঁয়ার রেকর্ড নেই।

সেই বিজয় আজ ফিরেছেন ৯৬ রানে। তবু রেকর্ড বইতে নাম তুলেছেন তিনি। ডিপিএলের এক আসরে সবচেয়ে বেশি অর্থাৎ ৯টি হাফ-সেঞ্চুরির রেকর্ড এখন বিজয়ের। এর আগে ৮টা করে ছিল নাঈম ইসলাম (২০১৪-১৫) আর রকিবুল হাসানের (১৮-১৯ মৌসুমে)।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here